আবার মামলা প্রদীপের নামে….

  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

ছবিঃ প্রতিকী ও সংগৃহীত।

টেকনাফ থানার সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশসহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে আদালতে একটি হত্যা মামলার এজাহার দায়ের করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে টেকনাফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট-৩ আদালতে এজাহারটি দায়ের করা হয়। তবে শুনানি শেষে এজাহারটি রুজু না করে ওই ঘটনায় অন্য কোনো হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে কিনা, তা জানাতে টেকনাফ থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

নিহত মাহমুদুর রহমানের ভাই নুরুল হোসাইন বাদী হয়ে এই এজাহার দায়ের করেন। বাদীপক্ষের আইনজীবী ইনসাফুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

১০ লাখ টাকা দাবি করে পাঁচ লাখ টাকা নিয়ে আরও পাঁচ লাখ টাকা না দেয়ায় টেকনাফের মাহমুদুর রহমান নামের এক প্রবাসীকে ক্রসফায়ারের নামে হত্যার অভিযোগ করে এই এজাহারটি দায়ের করা হয়।

মামলার এজাহারে এসআই দীপককে প্রধান ও বহিষ্কৃত ওসি প্রদীপ কুমার দাশকে ২নংসহ মোট ২৩ জনকে আসামি করা হয়। এর মধ্যে ১৮ জন পুলিশ সদস্য। বাকি পাঁচজন চৌকিদারসহ স্থানীয় লোকজন।

এজাহারে বাদী উল্লেখ আছে, গত ২৮ ফেব্রুয়ারি টেকনাফ মৌলভীপাড়া আলী আকবরপাড়ার মিয়া হোসেনের পুত্র প্রবাসী মাহমুদুর রহমানকে থানার এসআই দীপকের নেতৃত্বে একদল পুলিশ আটক করে নিয়ে যায়। পরে দীপক ও ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ক্রসফায়ার না দেয়ার শর্তে প্রবাসীর পরিবারের কাছে ১০ লাখ টাকা দাবি করেন।

পরে পরিবারের সদস্যরা নিরুপায় হয়ে পাঁচ লাখ টাকা দেন। কিন্তু আরও পাঁচ লাখ টাকা দাবি করে পুলিশ। দাবিকৃত পাঁচ লাখ টাকা না দেয়ায় ৩১ মার্চ রাতে ক্রসফায়ারের নামে প্রবাসী মাহমুদুর রহমানকে হত্যা করা হয়।

ডব্লিউ বি বি ও/ বিবিএন / স্টাফ রিপোর্টার


  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

Leave a Reply

Your email address will not be published.