মেসিকে নিতে আগ্রহী ক্লাবকে দিতে হবে ৭০ কোটি ইউরো।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মেসি-বার্সেলোনা দ্বন্দ্ব জটিল আকার ধারণ করছে। একদিকে মেসি ক্লাব ছাড়তে চাইছেন, অন্যদিকে বার্সেলোনার নিজেদের সেরা খেলোয়াড়কে ছাড়ার বিন্দুমাত্র ইচ্ছা নেই। একদিকে জানা যাচ্ছে, মেসিকে নিতে আগ্রহী ক্লাবকে দিতে হবে ৭০ কোটি ইউরো। ওদিকে জানানো হচ্ছে, রিলিজ ক্লজের শর্তের মেয়াদ শেষ, মেসি চাইলেই ক্লাব ছাড়তে পারবেন।

মেসি।ছবি:সংগৃহীত


তবে স্প্যানিশ লিগ কর্তৃপক্ষ বার্সেলোনার পক্ষেই আছে। লা লিগাও আজ আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়ে দিয়েছে মেসির রিলিজ ক্লজ ৭০ কোটি। এর এক টাকা (কিংবা ইউরো) কমেও নাকি বার্সেলোনার অনুমতি ছাড়া কারও পক্ষে মেসিকে নেওয়া সম্ভব নয়!


আজ এক আনুষ্ঠানিক এক বিবৃতিতে লা লিগা নিজেদের অবস্থান জানিয়ে দিয়েছে। মেসি ও বার্সেলোনার মধ্যকার চুক্তি পরীক্ষা করে তারা জানিয়েছে, মেসির চুক্তিতে একটি বাই আউট রিলিজ ক্লজ আছে এবং নিয়মানুযায়ী ক্লাবের অনুমতি ছাড়া যেতে চাইলে মেসিকে সেটা দিয়ে যেতে হবে।


লা লিগার বিবৃতিতে দুটি বিষয় উল্লেখ করা হয়েছে। সেগুলো হলো:
১. এখনো চুক্তি বলবৎ আছে এবং যদি মেসি চুক্তি বাতিল করে ক্লাব ছাড়তে চান সে ক্ষেত্রে রিলিজ ক্লজও উল্লেখ করা আছে। ১৯৮৫ সালের ২৬ জুন রাজকীয় আইনের ১৬ ধারা অনুযায়ী পেশাদার অ্যাথলেটদের চাকরির ক্ষেত্রে যে আইন করা হয়েছিল, সে আইন মেনেই এই চুক্তি করা হয়েছে।
২. নিয়মানুযায়ী এবং আগে এ ধরনের ঘটনার প্রেক্ষিতে লা লিগা খেলোয়াড়ের নাম ফেডারেশন থেকে প্রত্যাহার করবে না যতক্ষণ না ক্লজের সম্পূর্ণ টাকা খেলোয়াড় প্রদান করেন।


লা লিগার নিয়ম অনুযায়ী কোনো ক্লাব অন্য দল থেকে খেলোয়াড় কিনতে রিলিজ ক্লজ ব্যবহার করতে পারেন না। বরং সে খেলোয়াড় নিজের ক্লজের টাকার পুরোটা লা লিগার কাছে জমা দেন, অর্থাৎ বাই আউট ক্লজ।

নেইমারের দলবদলের সময় যেমন পিএসজি ২২ মিলিয়ন ইউরো দিলেও সে অর্থটা লা লিগার কাছে খেলোয়াড়ের আইনজীবীরাই দিয়ে এসেছে। এখন যেহেতু মেসির ক্ষেত্রে কোন ক্লাবে যেতে চান সেটা স্পষ্ট নয়, সেক্ষেত্রে ক্লাব ছাড়তে চাইলে সেটা মেসিকেই দেওয়ার কথা বলছে লা লিগা।

রুউ/স্টাফ রিপোর্টার/বিবিএন


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published.