মা-বাবার সাথে অভিমান করে আত্মহত্যা করলেন অভিনেত্রী লরেন…

  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

অভিনেত্রী লরেন মেন্ডেস। (সংগৃহীত)

রোববার (৩০ আগস্ট) সকাল সাড়ে সাতটায় বারিধারার কালাচাঁদপুরের নিজের বাসায় মা-বাবার সাথে অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন তরুণ মডেল ও অভিনেত্রী লরেন মেন্ডেস। গুলশান থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমিনুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

আমিনুল ইসলাম গণমাধ্যমকে জানান, বাবা-মায়ের সাথে অভিমান করেই সিলিং ফ্যানের সাথে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন এ অভিনেত্রী। এসময় তার মা বাসার বাইরে ছিলেন। ঝুলন্ত অবস্থা থেকে লাশটি নামায় তার বাবা। এ খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন এবং লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

‘ইন্টারনেট শেষ হলেও, নো টেনশন’ এয়ারটেলের বিজ্ঞাপনে ব্যবহৃত এই সংলাপটি দিয়ে আলোচনায় আসেন লরেন। তার পুরো নাম লরেন মেন্ডেস, ধর্মে খ্রিষ্টান।  ক্যারিয়ার শুরু করেন মডেলিং দিয়ে। তবে পরিচিতিটা পান এয়ারটেলের বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে।

বিজ্ঞাপন ছাড়াও তিনি মিউজিক ভিডিওতে কাজ করেছেন। ‘ঘোর’ শিরোনামে তপু খান ও কণার একটি দ্বৈত গানের ভিডিওতে মডেল হিসেবে হাজির হন তিনি। এছাড়া ‘তোমার পিছু ছাড়বো না’ শিরোনামের একটি গানের মডেল হয়ে বেশ আলোচনায় আসেন। এরপর তাকে দেখা গিয়েছে স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‌‘অমর প্রেম’ এ। সবশেষ তাকে দেখা যায় সঞ্জয় সমদ্দার পরিচালিত ‘ট্রল’ নাটকের শুটিংয়ে।

এ প্রসঙ্গে গুলশান থানা পরিদর্শক (তদন্ত) আরও বলেন, লরেন মেন্ডেস খুব স্বাধীনচেতা ছিলেন। বাবা-মায়ের সাথে বাইরে যাওয়া নিয়ে তার প্রতিদিনই মনোমালিন্য হতো, প্রায়ই কথা কাটাকাটি করতেন তিনি। পরিবারের ধারণা, এসব থেকেই লরেন অভিমানে গলায় ফাঁস দেন।

বিবিএন / স্টাফ রিপোর্টার।


  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published.