প্রথম দিনেই রানের বন্যা ইংল্যান্ডের

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


সাউথ্যাম্পটনে সিরিজের শেষ টেস্টের প্রথম দিনের খেলা শেষে ইংল্যান্ডের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৩৩২ রান। ক্রলি ১৭১ ও বাটলার ৮৭ রানে ব্যাট করছেন। অবিচ্ছিন্ন পঞ্চম উইকেটে দুই জনে ৩০৯ বলে গড়েছেন ২০৫ রানের জুটি

ছবি:ক্রলি ও বাটলার


আগের দুই টেস্টেই প্রথম দিনের প্রায় অর্ধেক সময়ের খেলা ভেসে গিয়েছিল বৃষ্টিতে। শুক্রবারও টসের ঠিক আগ মুহূর্তে বৃষ্টি নামলে জাগে শঙ্কা। খানিক পরই অবশ্য থেমে যায় বৃষ্টি, টস দেরিতে হলেও খেলা শুরু হয় নির্ধারিত সময়ে।

সম্ভাবনাময় ইনিংসগুলোকে পূর্ণতা দিতে পারছিলেন না জ্যাক ক্রলি। এবার সফল হলেন তরুণ এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। পাল্টা আক্রমণে তুলে নিলেন ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি। জস বাটলারের সঙ্গে চমৎকার জুটিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে তৃতীয় টেস্টে ইংল্যান্ডকে গড়ে দিলেন বড় সংগ্রহের ভিত।


সিরিজে প্রথমবার টস জিতে ব্যাটিং নেন রুট। শুরুতেই তারা হারায় ররি বার্নসকে। শাহিন শাহ আফ্রিদির বলে তৃতীয় স্লিপে শান মাসুদের হাতে ধরা পড়েন এই ওপেনার। সিরিজে তৃতীয়বার তিনি আউট হলেন আফ্রিদির বলে।


পঞ্চম ওভারে ক্রিজে যাওয়া ক্রলি শুরু থেকেই ছিলেন সাবলীল। অন্য প্রান্তে আস্থার সঙ্গে খেলছিলেন ডম সিবলি। ক্রলির ব্যাটে সচল ছিল রানের চাকা। তবুও হুট করে ইয়াসির শাহর ওপর চড়াও হতে গিয়ে এলবিডব্লিউ হয়ে যান সিবলি। ভাঙে ৬১ রানের জুটি।


লাঞ্চের আগেই ফিফটিতে পৌঁছানো ক্রলির সঙ্গে রুটের জুটি জমতে সময় লাগেনি। থিতু হয়ে যাওয়া রুটকে দুর্দান্ত এক ডেলিভারিতে থামান নাসিম শাহ। পোপকে চমৎকার এক ডেলিভারিতে বোল্ড করে দেন লেগ স্পিনার ইয়াসির।
বাটলার ক্রিজে যাওয়ার সময় ১২৭ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বেশ চাপে ইংল্যান্ড। তবে বিশেষজ্ঞ ব্যাটসম্যানদের শেষ জুটি আর ভাঙতে পারেনি পাকিস্তান।


চা-বিরতির আগেই জুটির রান ফিফটি স্পর্শ করে। আগের সেরা ৭৬ ছাড়িয়ে অপরাজিত ৯৭ রান নিয়ে বিরতিতে যান ক্রলি। তৃতীয় সেশনের শুরুতেই ১৭১ বলে ১১ চারে স্পর্শ করেন তিন অঙ্ক।

অন্য প্রান্তে নিজের মতো খেলতে শুরু করেন বাটলার। ইয়াসির-নাসিম-আফ্রিদি অনেক বাজে বল উপহার দিয়ে ইংলিশ ব্যাটসম্যানদের কাজটা সহজ করে দেন। তৃতীয় সেশনে রান আসে বেশ দ্রুত। ওয়ানডে ঘরানার ব্যাটিংয়ে ৩৪ ওভারে দুই ব্যাটসম্যান যোগ করেন ১৪৮ রান।


শেষ বেলায় দ্বিতীয় নতুন বল নিয়েও কাজ হয়নি। একটু সাবধানী ব্যাটিংয়ে সময়টা কাটিয়ে দেন ক্রলি ও বাটলার।
ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরিকে ডাবল সেঞ্চুরিতে পরিণত করার আশা জাগিয়েছেন ক্রলি। ১৯ চারে ২৬৯ বলে খেলছেন ১৭১ রানে। সেঞ্চুরির পথে রয়েছেন বাটলার। প্রথম টেস্টে ইংল্যান্ডের জয়ের অন্যতম নায়ক এই কিপার-ব্যাটসম্যান ১৪৮ বলে দুই ছক্কা আর নয় চারে করেছেন ৮৭ রান।
দুই উইকেট নেওয়া ইয়াসিরের রান দেওয়ার সেঞ্চুরি হয়ে গেছে এরই মাঝে। নাসিম ও আফ্রিদি নিয়েছেন একটি করে উইকেট।


সংক্ষিপ্ত স্কোর:
ইংল্যান্ড ১ম ইনিংস: ৯০ ওভারে ৩৩২/৪ (বার্নস ৬, সিবলি ২২, ক্রলি ১৭১, রুট ২৯, পোপ ৩, বাটলার ৮৭; আফ্রিদি ১৮-২-৭১-১, আব্বাস ২১-৩-৫২-০, ইয়াসির ২৮-৩-১০৭-২, নাসিম ১৭-৪-৬৬-১, ফাওয়াদ ৬-০-২৫-০)


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published.