চেন্নাইয়ের বিপক্ষে জয় পেল রাজস্থান

  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    4
    Shares

ম্যাচের শুরুতেই স্টিভ স্মিথের চমক। ১৩ বছরের পেশাদার ক্যারিয়ারে কখনোই যা করেননি আজ শারজায় তাই করে বসলেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক। রাজস্থান রয়্যালস অধিনায়ক নেমে গেলেন দলের ব্যাটিং উদ্বোধন করতে।

প্রথম শ্রেণি, লিস্ট ‘এ’ ও স্বীকৃত টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে ৪৯৬ ম্যাচের পেশাদার ক্যারিয়ারে প্রথমবার ব্যাটিং উদ্বোধন করতে নামে স্মিথ শেষ পর্যন্ত ফিরেছেন ১৯তম ওভারে। ৪৭ বলে ৪টি করে চার-ছক্কায় ৬৯ রান করেছেন স্মিথ।

তাঁর দল ২০ ওভারে করে ৭ উইকেটে ২১৬ রান। ম্যাচটি ১৬ রানে জিতেই এবারের আইপিএল অভিযান শুরু করেছে স্মিথের রাজস্থান। ৩৩ ছক্কার ম্যাচে প্রতিপক্ষ মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস রান তাড়ায় করতে পারে ৬ উইকেটে ২০০ ।

রাজস্থানের ইনিংসে সবচেয়ে বড় অবদান সঞ্জু স্যামসনের। অধিনায়ক স্মিথকে নিয়ে দ্বিতীয় উইকেটে ১২১ রান যোগ করার পথে ৩২ বলে ৭৪ রান করেছেন স্যামসন। ভারতের হয়ে চারটি টি-টোয়েন্টি খেলা ব্যাটসম্যান মেরেছেন ৯টি ছক্কা। এর সাতটি ছক্কাই স্যামসন মেরেছেন দুই স্পিনার পিযুষ চাওলা (৪টি) ও রবীন্দ্র জাদেজা (৩টি) দের।

পুরো ইনিংসে ১৭টি ছক্কা মেরেছেন রাজস্থানের ব্যাটসম্যানরা। স্মিথের মতো চারটি ছক্কা জফরা আর্চারেরও। নয়ে নামা ইংলিশ ক্রিকেটার শেষ ওভারে লুঙ্গি এনগিডির প্রথম চার বলেই টানা ছক্কা মেরে দেন। দক্ষিণ আফ্রিকান পেসারের জন্য কী দুঃস্বপ্নের এক ওভারই না ছিল সেটি।

ওভারে ৩০ রান দিয়েছেন এনগিডি। প্রথম দুই বলে আর্চার ছক্কা মারার পর পরের দুটি বলই ‘নো’, দুই ছক্কাসহ ওই দুই বল থেকে আসে ১৪ রান। এরপর আবার একটি ওয়াইড। চতুর্থ চেষ্টায় বৈধভাবে তৃতীয় বলটিকে করতে পারেন এনগিডি। শেষ তিন বলে মাত্র ৩ রান দিলেও আইপিএলে ২০তম ওভারে সবচেয়ে বেশি রান দেওয়ার রেকর্ড ততক্ষণে ছুঁয়ে ফেলেন এনগিডি।

আইপিএলে ২০তম ওভারে সবচেয়ে বেশি ৩০ রান দেওয়ার রেকর্ডে এনগিডির সঙ্গী অশোক দিন্দা ও ক্রিস জর্ডান।

স্মিথ, স্যামসন ও আর্চার ছাড়া রাজস্থানের ইনিংসে দুই অঙ্ক ছুঁয়েছেন মাত্র দুজন। রাহুল তেওয়াতিয়া ও টম কারেন দুজনই করেন ১০ রান করে।

রান তাড়ায় ৬.৪ ওভারে উদ্বোধনী জুটিতে চেন্নাইকে ৫৬ রান এনে দেন শেন ওয়াটসন (২১ বলে ৪ ছক্কায় ৩৩ রান) ও মুরালি বিজয় (২১ বলে ২১ রান)। সেখান থেকেই নবম ওভার শেষে ৪ উইকেট ৭৭ চেন্নাইয়ের স্কোর।

ছবি:সংগৃহীত

এরপর ব্যবধান যা কমিয়েছেন ফাফ ডু প্লেসি। দক্ষিণ আফ্রিকান ব্যাটসম্যানও মেতেছিলেন ছক্কা উৎসবে। ৩৭ বলে ৭২ রানের ইনিংস খেলার পথে ৭টি ছক্কা মেরেছেন ডু প্লেসি।

শেষ ওভারে ৩৮ রান দরকার ছিল চেন্নাইয়ের। অধিনায়ক ধোনি টম কারেনের বলে টানা তিনটি ছক্কা মেরে শুধু ব্যবধানই কমিয়েছেন। ১৭ বলে ২৯ রানে অপরাজিত ছিলেন ধোনি।

স্টাফ রিপোর্টার/বে অব বেঙ্গল নিউজ


  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    4
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published.