সম্পত্তিতে হিন্দু ও বৌদ্ধ নারীদের সমান অধিকার নিশ্চিতে আইন প্রণয়নে লিগ্যাল নোটিশ…

  • 8
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    8
    Shares

আইন – আদালত

স্বামী বা পিতা-মাতার সম্পত্তিতে হিন্দু ও বৌদ্ধ নারীদের সমান অধিকার নিশ্চিত করতে আইন প্রণয়নে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে গতকাল রেজিস্ট্রি ডাকযোগে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, আইন সচিব এবং ধর্ম সচিব বরাবর লিগ্যাল নোটিশ পাঠান সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী তনয় কুমার সাহা।

সরকারকে পাঠানো এই লিগ্যাল নোটিশে বলা হয়েছে, হিন্দু এবং বৌদ্ধ নারীদের সম্পত্তিতে অধিকার না পাওয়ার নেপথ্যে ধর্মীয় কারণ। এটা লিঙ্গ বৈষম্যের কারণে নয়। সংবিধানের ২৭ এবং ২৮ অনুচ্ছেদে নারীদের সমান অধিকারের কথা বলা আছে।
এছাড়া বাংলাদেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক কনভেনশনের সদস্য। ঐ সব কনভেনশনের আর্টিকেলগুলোতে এটি বাস্তবায়নের কথা আছে। তাই এ বিষয়ে আইন করতে নোটিশ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী তনয় কুমার সাহা।

এর আগে গত ২ সেপ্টেম্বর এক ঐতিহাসিক রায়ে হাইকোর্ট বলেছেন, দেশের হিন্দু বিধবারা স্বামীর সব সম্পত্তিতে ভাগ পাবেন। বাংলাদেশের সংবিধানে নারী-পুরুষের সমান অধিকারের কথা বলা হয়েছে। নারীনীতিতেও বলা হয়েছে সমান অধিকারের কথা। কিন্তু সম্পত্তিতে এ দেশের হিন্দু নারীর উত্তরাধিকার প্রতিষ্ঠা পায়নি এতকাল। হাইকোর্টের এই রায়ের ফলে হিন্দু নারীরা সেই উত্তরাধিকারের স্বীকৃতি পেলেন বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

আইনজীবীরা বলেছেন, ৮৩ বছরের পুরোনো হিন্দু বিধবা সম্পত্তি আইনে স্বামীর বসতভিটাতেই শুধু অধিকার দেয়া হয়েছিল। এখন হাইকোর্টের রায়ের প্রেক্ষাপটে হিন্দু বিধবা নারীদের স্বামীর সব সম্পত্তিতে অধিকার প্রতিষ্ঠিত হবে।
সম্পত্তির অধিকার নিয়ে আন্দোলনকারি নারীরা বলেছেন, এখন শত শত বছরের বৈষ্যমের বেড়াজাল থেকে বেরোনো সম্ভব হতে পারে বলে তারা মনে করেন।

এসি/বিবিএন /স্টাফ রিপোর্টার।


  • 8
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    8
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published.