রেয়াজুদ্দিন বাজারে দোকান কর্মচারী হত্যাকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই- আ জ ম নাছির উদ্দীন

  • 34
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    34
    Shares

ছবি: বক্তব্যরত সাবেক চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন

রেয়াজুদ্দিন বাজারে মালিকের নিষ্ঠুর নির্যাতনের শিকার হয়ে মৃত্যুবরণ করা মো. রাসেলের হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

মঙ্গলবার রীমা কমিউনিটি সেন্টারে জাতীয় শ্রমিক লীগ অন্তর্ভুক্ত বেসিক ইউনিয়ন সমন্বয় পরিষদের উদ্যোগে চট্টগ্রাম মহানগর আওতাধীন বেসিক ইউনিয়ন, সিবিএ,নন সিবিএ নেতৃবৃন্দের প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।


সভায় প্রধান আলোচকের বক্তব্যে সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর নগরীর রেয়াজুদ্দিন বাজারে চুরির দায়ে অভিযুক্ত করে নিরীহ কর্মচারী রাসেলকে দোকানের মালিক নিষ্ঠুর ভাবে পিটিয়ে হত্যা করেছে। মালিক পক্ষ ঐ কর্মচারীকে তার মা বাবার সামনেই পিটিয়ে মেরেছে। আইন হাতে তুলে নেয়ার ঐ দোকান মালিককে কে দিয়েছে? ঐ কর্মচারী যদি চুরির অপরাধে অপরাধী হয়ে থাকে তাহলে রাষ্ট্রের আইন শৃঙ্খলা প্রশাসন আছে। সংশ্লিষ্ট আইন শৃঙ্খলা প্রশাসনই তার আইনানুগ বিচার করার অধিকার রাখে।

দোকানের মালিক কোন ক্ষমতার বলে খেটে খাওয়া মানুষ ঐ নিরীহ কর্মচারীকে পিটিয়ে মেরেছে? আমি হত্যাকান্ডে জড়িতদের দ্রুত দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। এই ঘটনার সুষ্ঠু বিচার নিশ্চিতের জন্য সংশ্লিষ্ট শ্রমিক নেতৃবৃন্দকে সম্মিলিত ভাবে কাজ করতে হবে। একজন শ্রমিক কর্মচারীর উপর আঘাত আসলে সকলকে ঐক্যবদ্ধ শক্তিতে তা মোকাবেলা করতে হবে। শ্রমিকদের ঐক্যবদ্ধ শক্তির কাছে কোন অপশক্তি মাথা তুলে দাঁড়াতে পারবে না।


প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশের মতো শ্রমনিবিড় উন্নয়নশীল দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে শ্রমিক ও মালিকের মধ্যে পারস্পরিক সমঝোতা ও হৃদ্যতা বজায় রাখা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আজীবন মেহনতি মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য সংগ্রাম করে গেছেন।

বেসিক ইউনিয়ন সমন্বয় পরিষদ আহবায়ক মুহাম্মদ এয়াকুবের সভাপতিত্ব ও সদস্য সচিব মো. মিরণ হোসেন মিলনের সঞ্চালনায় প্রতিনিধি সভায় জাতীয় শ্রমিক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি শফর আলী,নগর আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, কালুরঘাট আঞ্চলিক শ্রমিক লীগ সভাপতি আলী আকবর, বাংলাদেশ রেলওয়ে শ্রমিক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহারকারী শ্রমিক কর্মচারী লীগ সভাপতি মীর নওশাদ, বাংলাদেশ অয়েল এন্ড গ্যাস শ্রমিক ফেডারেশন সভাপতি সাদেকুর রহমান, বৃহত্তর চট্টগ্রাম সড়ক পরিবহন শ্রমিক ঐক্য পরিষদ সদস্য সচিব উজ্জল বিশ্বাস, দোকান কর্মচারী কর্মচারী ফেডারেশন সভাপতি মো. আলমগীর, চট্টগ্রাম ওয়াসা শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলাম, মহিলা শ্রমিক লীগ সভাপতি নাসরিন আক্তার, শ্রমিক নেতা মো. বেলাল হোসেন চৌধুরী, আবদুর রহিম মাষ্টার, মো. ওসমান, হারুণুর রশিদ, মো. নুরুল আমিন মিয়া, মো. ইদ্রিস হাওলাদার, মো. আলমগীর, শাহ আলম ভুঁইয়া, কামাল উদ্দিন চৌধুরী, মো. বখতেয়ার উদ্দিন, মো. আবুল খায়ের, নজরুল ইসলাম খোকন, মো. ফরিদুল আলম, লুৎফুন্নাহার সোনিয়া, ওমর ফারুক, লোকমান হাকিম, আবদুস সালাম, ইদ্রিস মোল্লা, মো. জাহাঙ্গীর প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।


  • 34
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    34
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published.