কিশোরগঞ্জের কাটিয়াদীতে গাড়ি তল্লাশি করে যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি একটি একে-২২ রাইফেল, ১৮ রাউন্ড গুলি ও ১টি ম্যাগাজিন পাওয়া গেছে…

  • 15
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    15
    Shares

IMG 20201012 095529
কিশোরগঞ্জের কাটিয়াদীতে গাড়ি তল্লাশি করে যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি একটি একে-২২ রাইফেল, ১৮ রাউন্ড গুলি ও ১টি ম্যাগাজিন পাওয়া গেছে

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে মারামারি মামলার আসামি তারিকুল মুশতাক রানাকে না পেয়ে তার স্ত্রী আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনের সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী সালমা আনিকার গাড়ি জব্দ করেছে পুলিশ।পরে কটিয়াদী মডেল থানায় নিয়ে গাড়ি তল্লাশি করে যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি একটি একে-২২ রাইফেল, ১৮ রাউন্ড গুলি ও একটি ম্যাগাজিন পাওয়া যায়। এ সময় সালমা আনিকাকে অস্ত্রের লাইসেন্স দেখাতে বললে তিনি তার স্বামী তারিকুল মুশতাক রানার নামে ইস্যুকৃত লাইসেন্স ওসি এমএ জলিলের হাতে তুলে দেন।

সূত্র মতে, তারিকুল মুশতাক রানা কটিয়াদী উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সভাপতি এবং উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ডা. মুশতাকুর রহমানে এর ছেলে। তার বিরুদ্ধে মারামারির ঘটনায় কটিয়াদী মডেল থানায় একটি মামলা রয়েছে বলে জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, যদিও আস্নন পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল এখনো ঘোষণা হয়নি,তবুও কটিয়াদীতে অন্তত এক ডজন প্রার্থী মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন এখন পর্যন্ত।তাদের মধ্যে সালমা আনিকা ই একমাত্র নারী প্রার্থী।

শনিবার বিকেলে তিনি পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের কমরভোগ এলাকায় উঠান বৈঠক করছিলেন। উঠান বৈঠকের শেষ পর্যায়ে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সালমা আনিকার স্বামী, মারামারি মামলার আসামি তারিকুল মুশতাক রানা সটকে পড়েন।এইদকে তারিকুল মুশতাক রানাকে ধরতে না পেরে পুলিশ তার স্ত্রী সালমা আনিকার গাড়ি থানায় নিয়ে যেতে চাই।পুলিশ গাড়ি নিয়ে যেতে চাইলে সালমা নিজেও থানায় যান।
পরে গাড়িটি তল্লাশি করে যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি একটি একে-২২ রাইফেল, ১৮ রাউন্ড গুলি ও একটি ম্যাগাজিন পায় পুলিশ।

এ বিষয়ে কটিয়াদী মডেল থানার ওসি এমএ জলিল জানিয়েছেন, গাড়িটি তল্লাশি করে একটি রাইফেল, ১৮ রাউন্ড গুলি ও একটি ম্যাগাজিন পাওয়া যায়। লাইসেন্সে অস্ত্রের সঙ্গে ১০০ গুলির বিষয় উল্লেখ আছে। বাকি গুলি কোথায়, কী অবস্থায় আছে অনুসন্ধানের পর এবং লাইসেন্স যাচাই-বাছাই শেষে জব্দ অস্ত্রটির ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। গাড়ির কাগজপত্রও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে।

সালমা আনিকা অভিযোগ করে বলেন, গাড়িটি আমার নামে রেজিস্ট্রেশন করা। সব কাগজপত্র দেখানোর পরও গাড়িটি ছেড়ে না দিয়ে থানায় জব্দ করে রাখা হয়েছে। আমার নির্বাচনী প্রচারে বাধা সৃষ্টির জন্য একটি পক্ষের হয়ে এমনটি করছে পুলিশ।

এসি/বে অব বেঙ্গল নিউজ/স্টাফ রিপোর্টার।


  • 15
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    15
    Shares