হাইকোর্টে নিক্সন চৌধুরীর জামিন, অডিও ফাঁসে ডিসির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে রিটের হুঁশিয়ারি

  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    5
    Shares

নির্বাচন কমিশনের মামলায় ফরিদপুর চার আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য নিক্সন চৌধুরী কে আট সপ্তাহের আগাম জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। তবে এজন্য সুনির্দিষ্টভাবে জুড়ে দিয়েছেন পাঁচটি শর্ত। আদালত তার পর্যবেক্ষণে বলেছেন একজন সংসদ সদস্যের কাছে এই ধরনের আচরণ কাম্য নয়।

হাইকোর্টে নিক্সন চৌধুরী
চিত্র: হাইকোর্টে নিক্সন চৌধুরী।

অন্যদিকে ফোন আলাপ ফাঁসে জেলা প্রশাসকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে রিটের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন নিক্সন চৌধুরী।

নির্বাচন কমিশনের মামলায় আগাম জামিন নিতে হাইকোর্ট আসেন ফরিদপুর ৪ আসনের সংসদ সদস্য মুজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন । এ খবরে হাইকোর্টে জড়ো হতে থাকেন নেতাকর্মীরা। সকালে নিজেই উপস্থিত হয়ে আইনজীবীর মাধ্যমে সুনানির আবেদন করেন নিক্সন চৌধুরী।

এসময় ফোনালাপ ফাঁসের ঘটনায় সরকার ব্যবস্থা না নিলে স্থানীয় প্রশাসনের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিট করার ঘোষণা দেন তিনি।

এ ব্যাপারে নিক্সন চৌধুরী গণমাধ্যমকে বলেন, আমি উচ্চ আদালতে যাব। কারণ এটা তো আমাদের আইসিটি আইনে আছে যে কেউ কারো কথা রেকর্ড করতে পারবেনা। সেখানে জেলা প্রশাসক বলতে চান এটা উনার কাছে আমানত হিসেবে আছে। উনার কাছ থেকে কিভাবে এটা বের হলো?

তিনি আরো বলেন, কেবল আমি না সারা বাংলাদেশের মানুষই তার কাছে জানতে চাচ্ছে, তিনি কি করে এটা সোশ্যাল মিডিয়ায় দিলেন?

২০ অক্টোবর মঙ্গলবার বেলা দেড়টার পর শুনানি শুরু হয়।নিক্সন চৌধুরীর আইনজীবী আদালতকে বলেন যে প্রক্রিয়ায় ফোনালাপ ফাঁস হয়েছে তা ঠিক হয়নি। আরো বলেন সংসদ সদস্য শপথ ভঙ্গ করলে তা দেখার ইখতিয়ার মাননীয় স্পিকারের এইসময় নিক্সন চৌধুরীর বিরুদ্ধে এজাহার নিয়ে প্রশ্ন তুলেন আদালত।

শুনানি শেষে পাঁচশর্তে আদালত নিক্সন চৌধুরী কে জামিন দেন। একজন সংসদ সদস্যের কাছে এই ধরনের আচরণ কোনোভাবেই কাম্য নয়।

এ ব্যাপারে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল জান্নাতুল ফেরদৌস রুপা বলেন, একজন সংসদ সদস্যের কাছে আমরা আইন ভঙ্গ করার মত কোন বিষয় তার কাছ থেকে আশা করি না।

গেল ১০ অক্টোবর চরভদ্রাসন উপজেলা পরিষদের উপনির্বাচনে আচরণ বিধি লঙ্ঘন এবং সরকারি কর্মকর্তাদের ভয়ভীতি দেখানোর অভিযোগে ১৫-ই অক্টোবর নিক্সন চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলা করেন নির্বাচন কমিশন।

যে পাঁচটি শর্তে আদালত নিক্সন চৌধুরী কে আটসপ্তাহের আগাম জামিন দিয়েছেন তা হল: ১. এই মামলার পুরোতদন্ত তিনি সহযোগিতা করবেন। ২. মামলার কোনো আলামত এবং সাক্ষীকে তিনি ভয়-ভীতি প্রদর্শন করবেন না ও আলামত নষ্ট করবেন না। ৩.এর মধ্যে যদি নিক্সন চৌধুরী ওই এলাকায় যান তার পরেও তিনি কারো উপরে প্রভাব বিস্তার করতে পারবেন না। ৪. প্রশাসনের উপর কোন ভাবে প্রভাব বিস্তার করা যাবে না এবং তদন্তে সহযোগিতা করতে হবে। ৫. আইনের তদন্ত প্রক্রিয়ায় কোনরকম হস্তান্তর করা যাবে না।

তাছাড়া আদালত আরও বলেছেন যদি তিনি আটসপ্তাহের মধ্যে এই পাঁচটি শর্ত ভঙ্গ করা হলে তার জামিন বাতিল করা হবে। রাষ্ট্রপক্ষ বলেছে আগামীকাল তারা এই জামিনের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার আদালতে আপিল করবে।

ওয়াইএইচ / বে অব বেঙ্গল নিউজ / Bay of Bengal news


  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    5
    Shares