বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে চট্টগ্রাম মহানগর আ’লীগের বিক্ষোভ সমাবেশ

চট্টগ্রাম: কুষ্টিয়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে হেফাজত ইসলামসহ মৌলবাদী, সাম্প্রদায়িক শক্তিকে সম্মিলিত ভাবে চট্টগ্রাম থেকে বিতাড়িত করার ডাক দেয় সংগঠনটির নেতাকর্মীরা।
বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে চট্টগ্রাম মহানগর আ'লীগের বিক্ষোভ সমাবেশ
বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে চট্টগ্রাম মহানগর আ’লীগের বিক্ষোভ সমাবেশ

বুধবার ৯ ডিসেম্বর বিকালে নগরীর আন্দরকিল্লা মোড় চত্বরে অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশে সংগঠন টির নেতৃবৃন্দ তাদের বক্তব্যে এই ডাক দেন।

কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্ব ও প্রচার সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুকের সঞ্চালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নঈম উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী, এড.ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, জহিরুল আলম দোভাষ, আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, শফিক আদনান, সাংগঠনিক সম্পাদক চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, মসিউর রহমান, চন্দন ধর, এড.ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালির হৃদয়ে মিশে আছেন। ভাস্কর্য ভাংচুর করে জাতির জনককে এই জাতির মণিকোঠা থেকে সরানো যাবে না। বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে উস্কানিমূলক বক্তব্য দিয়ে, ভাস্কর্য ভাংচুর করে এই দেশে টিকে থাকা যাবে না।
সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিতে সরকারের কাছে দাবী জানান।

সমাবেশে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক সিটি কর্পোরেশন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ যখন উন্নয়নের কাঙ্খিত মাইলস্টোন স্পর্শ করতে যাচ্ছে। ঠিক তখনই পাকিস্তানি প্রেতাত্মা বিএনপি-জামায়াতের মদদপুষ্ট হেফাজত ইসলামের নেতা মামুনুল হক জাতির জনকের ভাস্কর্য নিয়ে ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য দিয়ে বিভ্রান্তির অপরাজনীতি চালিয়ে যাচ্ছে। ইসলামের ফতোয়া দিয়ে দেশে অনৈসলামিক অপতৎপরতা সৃষ্টি করছে। তাদের ইন্ধনেই কুষ্টিয়ায় জাতির জনকের ভাস্কর্য ভাংচুর করা হয়েছে। দেশের বিভিন্ন জায়গায় মেজর জিয়ার ভাস্কর্য রয়েছে। কিন্তু সেই ভাস্কর্য নিয়ে হেফাজত ইসলামের কোন মাথাব্যথা নেই। শুধু বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য, শহীদ মিনার, স্মৃতিসৌধ নিয়েই তাদের যত রাজনীতি। জাতির জনককে নিয়ে আর যদি কোন বক্তব্য দেয়া হয়, আর যদি ধর্মপ্রাণ মানুষকে ধর্মের দোহাই দিয়ে বিভ্রান্ত করা হয়-তাহলে আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ শক্তিকে হেফাজত ইসলাম ও তাদের দোসরদের চট্টগ্রাম থেকে বিতাড়িত করবে।


সমাবেশ শেষে সংগঠনটি একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল আন্দরকিল্লা থেকে জামালখান হয়ে নগরীর গুরুত্বপূর্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে আয়োজিত উক্ত সমাবেশে সকল ২৬টি ওয়ার্ড থেকে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, শ্রমিকলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ অঙ্গসহযোগী সংগঠনের হাজার হাজার নেতাকর্মী অংশগ্রহণ করেন।

বঙ্গবন্ধু / বে অব বেঙ্গল নিউজ / bay of bengal news / BBN