কাদের মির্জার সংবাদ সম্মেলন হত্যাচেষ্টা’র অভিযোগ একরামুল করিম চৌধুরীর বিরুদ্ধে

কাদের মির্জার সংবাদ সম্মেলন হত্যাচেষ্টা'র অভিযোগ একরামুল করিম চৌধুরীর বিরুদ্ধে

কাদের মির্জার সংবাদ সম্মেলন; হত্যাচেষ্টা’র অভিযোগ একরামুল করিম চৌধুরীর বিরুদ্ধে

নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই আব্দুল কাদের মির্জা তাকে হত্যার ষড়যন্ত্র চলছে বলে অভিযোগ করেছেন।

তিনি বলেন, ‘আমি হত্যাকাণ্ডের শিকার হতে পারি। একরামের (নোয়াখালী-৪ আসনের সাংসদ একরামুল করিম চৌধুরী) বাড়িতে বসে আমাকে হত্যার ষড়যন্ত্র হচ্ছে। আমার নেতাকর্মীদের বিনা কারণে প্রতিনিয়ত হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে।’

আজ শনিবার বসুরহাট পৌর কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে কাদের মির্জা এ কথা বলেন।

মেয়র বলেন, ‘আমার প্রতিটি নেতাকর্মীর বাড়িতে গিয়ে প্রশাসনের লোকজন নানাভাবে হয়রানি করছে। তাদের পরিবার পরিজনের উপর মানসিক নির্যাতন চালাচ্ছে। এখানে প্রশাসন এমপির কথায় একতরফা ভূমিকা পালন করছে।’

প্রসঙ্গত আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে বেশ কিছুদিন ধরে উত্তপ্ত নোয়াখালীর রাজনীতি। সর্বশেষ ৯ মার্চ (মঙ্গলবার) পৌরসভা চত্বরে উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল ও পৌরসভার মেয়র কাদের মির্জার সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় আলাউদ্দিন (৩২) নামের এক যুবলীগ কর্মী নিহত হয়।

এই ঘটনার পর পৌর এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করে উপজেলা প্রশাসন। ফের যেকোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনাবঘটতে পারে এমন আশঙ্কায় পৌরসভা এলাকা ও কোম্পানিগঞ্জের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট সমূহে অতিরিক্ত পুলিশ ও র‍্যাব মোতায়েন করা হয়।

এদিকে ঘটনার পর থেকে পৌর কার্যালয়ে অবস্থান করছেন মেয়র কাদের মির্জা। বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) মিজানুর রহমান বাদলকে গ্রেফতারের পর কাদের মির্জাকেও আটকের গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়লেও শেষ পর্যন্ত তা ঘটেনি। এমন পরিস্থিতিতে সংঘর্ষের চারদিন পর প্রথমবারের মতো আনুষ্ঠানিক ভাবে সাংবাদিকদের সামনে এলেন কাদের মির্জা।

সংবাদ সম্মেলনে পৌর মেয়র বলেন, সেদিন আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে বেপরোয়া ভাবে পৌরসভা কার্যালয়ে গুলি চালানো হয়। আমার ১০-১৫ জন কর্মী এখনও মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে শুয়ে আছে।

এসময় কাদের মির্জা সংঘর্ষের ঘটনায় তথ্য মন্ত্রী হাসান মাহমুদ ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা সুজিত রায় নন্দী সহ এনএসআই ও ডিজিএফআই দ্বারা নিরপেক্ষ তদন্ত করে প্রকৃত দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.