নরসিংদীতে স্কুলছাত্রকে গলা কেটে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাই

নরসিংদীতে স্কুলছাত্রকে গলা কেটে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাই।
নরসিংদীতে স্কুলছাত্রকে গলা কেটে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাই
নরসিংদীতে স্কুলছাত্রকে গলা কেটে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাই

নরসিংদীতে শাওন মিয়া (১৫) নামে ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রকে গলা কেটে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাই করেছে দুর্বৃত্তরা।

বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) সকাল ১১টার দিকে শহরের কামারগাঁও কবরস্থানের কাছ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত শাওন ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল থানার সিংড়াইল গ্রামের আব্দুল কাইয়ুম মিয়ার ছেলে।

তবে সে নরসিংদী শহরের রাঙ্গামাটি এলাকার সজল মিয়ার বাড়িতে পরিবারের সঙ্গে ভাড়া থাকতো। শাওন নরসিংদী মীর ইমদাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র। পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানান, শাওনের বাবা আব্দুল কাইয়ুম ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা চালান।

কিন্তু গত দু’দিন ধরে তিনি অসুস্থ থাকায় সংসারের ব্যয় যোগাতে শাওন অটোরিকশা চালাচ্ছিল। বুধবার বিকেলে সে বাসা থেকে অটোরিকশা নিয়ে বের হয়। এরপর রাতে আর বাড়ি ফেরেনি শাওন। অনেক খুঁজেও তাকের পাচ্ছিলেন না স্বজনরা।

পরে সকাল ১০টার দিকে শহরের কামারগাঁও এলাকার কবরস্থানের পাশে একটি মরদেহ দেখে ৯৯৯ এ ফোন দেন এলাকাবাসী। সকাল ১১টার দিকে সদর মডেল থানা পুলিশ সেখানে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। এদিকে, লোকমুখে মরদেহ পড়ে থাকার খবর পেয়ে স্বজনরা গিয়ে মরদেহটি শাওনের বলে শনাক্ত করেন। এসময় শাওনের সঙ্গে থাকা অটোরিকশাটি পাওয়া যায়নি।

খবর পেয়ে ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার এনামুল হক সাগর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।নরসিংদী সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার দত্ত চৌধুরী বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, দুর্বৃত্তরা শাওনকে গলা কেটে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাই করেছে। হত্যাকারীদের শনাক্ত ও আটক করতে পুলিশি অভিযান শুরু হয়েছে।